CPA মার্কেটিং কি? কেন করবেন? কিভাবে করবেন?

CPA মার্কেটিং কি?

CPA -এর পূর্ণরূপ হচ্ছে Cost Per Action (প্রতি কাজের জন্য খরচ)অ্যাফিলিয়েট মার্কেটিং এর একটি অংশ হচ্ছে CPA মার্কেটিং। এটি একটি অ্যাডভারটাইজিং মেথড । বর্তমানে ডিজিটাল মার্কেটাররা অ্যাফিলিয়েট মার্কেটিংয়ের চেয়ে CPA মার্কেটিং বেশি পছন্দ করে।

কারণ, অ্যাফিলিয়েট মার্কেটিং করতে হলে যেকোনো পণ্য বিক্রি হতে হবে। আর বিক্রি না হলে কোন কমিশন পাওয়া যাবে না। আবার দুর্ভাগ্যবশত কোন পণ্য মার্কেটপ্লেসে সেলস রিফান্ড হলে কমিশন পাওয়া যাবে না। কিন্তু CPA এমন এক ধরনের অ্যাফিলিয়েট মার্কেটিং যার মাধ্যমে কোন পণ্য বিক্রি এর পাশাপাশি ডাউনলোড, শেয়ার, কোন সাইটে রেজিষ্টেশন, ইমেইল সাবমিট , জিপ কোড সাবমিট, পিন সাবমিট, সাবস্ক্রাইব করা ইত্যাদি কাজের মাধ্যমে ইনকাম করতে পারেন।

অর্থাৎ আমার একটি ইউটিউব চ্যানেল আছে Grow Online নামে। আমি অফার দিলাম যে, আমার চ্যানেলে ভিউ এবং সাবস্ক্রাইব করিয়ে দিতে পারলে প্রতি সাবস্ক্রাইবে ৩ ডলার পেমেন্ট দেয়া হবে। সেই চ্যানেলে আপনার পরিচিত বা অপরিচিত কোন বন্ধুকে সাবস্ক্রাইব করাইলেন।
তাহলে আপনি প্রতি সাবস্ক্রাইবে ৩ ডলার করে পাবেন। এখন সে যদি ভিডিও নাও দেখে তবুও আপনার রেফারেন্সে সাবস্ক্রাইব করার কারনে আপনাকে ৩ ডলার পেমেন্ট দেওয়া হবে।
এবং সে যদি সাবস্ক্রাইব করার পর ভিডিও দেখে, লাইক দেয়, শেয়ার করে অথবা ডাউনলোড করে, তাহলে প্রতিটা কাজের জন্য আপনাকে পেমেন্ট করা হবে। এই টাকার পরিমাণ গড়ে $1-$10 হতে পারে। কিংবা আরও বেশি হতে পারে। আর এই প্রক্রিয়াটার নাম হচ্ছে CPA মার্কেটিং।

কিভাবে CPA মার্কেটিং করবেন?

যারা CPA নেটওয়ার্ক এর মাধ্যমে প্রোডাক্ট বা সার্ভিসের বিজ্ঞাপন দেয় তাদেরকে অ্যাডভারটাইজার বলে। আর আপনি সেই অ্যাডভারটাইজার এর প্রোডাক্ট বা সার্ভিসের প্রমোশন করবেন বলে আপনি মার্কেটার।

সিপিএ মার্কেটিং বিভিন্ন ক্যাটাগড়িতে হতে পারে। যেমন:

পে পার সেল (PPS): প্রত্যেক প্রোডাক্ট বা সার্ভিসের বিক্রি থেকে যে ইনকাম হয় তাকে পে পার সেল (PPS) বলে।

পে পার লিড (PPL): প্রত্যেক রেজিষ্টেশন বা সাইন আপ, ইমেইল সাবমিটের মাধ্যমে যে ইনকাম হয় তাকে পে পার লিড (PPL) বলে।

পে পার ডাউনলোড (PPD): প্রত্যেক ডাউনলোডে যে ইনকাম হয় তাকে পে পার ডাউনলোড (PPD) বলে। ইত্যাদি

CPA মার্কেটিং আপনি ওয়েবসাইট এর মাধ্যমে করতে পারেন। ওয়েবসাইট না থাকলে ইউটিউব চ্যানেলের মাধ্যমে কিংবা বিভিন্ন সোশ্যাল মিডিয়ার মাধ্যমে যেমন ফেসবুক, টুইটার, ইন্সটাগ্রাম ইত্যাদি।

CPA মার্কেটিং থেকে কি রকম আয় করা সম্ভব?

সিপিএ মার্কেটিংয়ে ইনকামের পরিমাণ তুলনা মূলকহাড়ে একটু কম। এটা নির্ভর করে আপনার কাজের উপর। তবে নিয়মিত এবং নিয়ম মেনে কাজ করলে প্রতি মাসে হাজার ডলারের উপর ইনকাম করা সম্ভব। নিয়ম মেনে না কাজ করলে এক টাকাও ইনকাম করা সম্ভব না। আপনি ৪ ডলারের কাজ নিয়ে দিনে যদি ১০ টি অ্যাকশন কমপ্লিট করতে পারেন তাহলে দিনে ৪০ ডলার ইনকাম করতে পারবেন। মাসে ইনকাম হবে ১২০০ ডলার।

এখানে আমি জনপ্রিয় কিছু সিপিএ মার্কেটিং সাইটের নাম উল্লেখ করছিঃ

এসব সাইটে রেজিস্টার করে বা Account করে সিপিএ মার্কেটিং করতে পারবেন।
Register Now

বর্তমানে অনেক ভুয়া ওয়েবসাইট আছে। আপনাকে লোভ দেখিয়ে নিয়ে যেতে পারে। ভুলেও এসব ফাঁদে পা বাড়াবেন না।
CPA মার্কেটিংয়ের জন্য পৃথিবীর এক নম্বর নেটওয়ার্ক হল Maxbounty.Com । এই ওয়েবসাইটে Account খুলার পর সাইটের Admin সরাসরি আপনাকে কল করে ইন্টারভিউ নিবে, ইংরেজীতে প্রশ্ন করবে এবং ইংরেজীতে উত্তর দিতে হবে। এই ওয়েবসাইটে Account করতে হলে আপনাকে ভালো মানের মার্কেটার বা CPA Expert হতে হবে।

তাহলে, CPA মার্কেটিং কি? কেন করবেন? কিভাবে করবেন? এই ব্যাপারে হয়তো আপনারা এখন ভালো করে বুঝে গেছেন।

Comments 3

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *