গ্রাফিক্স ডিজাইন কি? কিভাবে গ্রাফিক্স ডিজাইন শিখা যায়?

যদি স্বাধীন ভাবে কাজ করতে চান তাহলে ফ্রিল্যান্সার, গ্রাফিক্স ডিজাইনার হিসাবে নিজেকে গড়ে তুলতে পারেন। প্রচুর কর্মক্ষেত্র আর তুমুল চাহিদা থাকার কারনে একজন প্রোফেসনাল গ্রাফিক্স ডিজাইনার এর গ্রহণযোগ্যতা অনেক বেশি। অন্য সব পেশা থেকে গ্রাফিক্স ডিজাইন পেশা সবচেয়ে নিরাপদ, ঝামেলাহিন, স্বাধীনতাপূর্ণ। অন্য সব পেশার বিপরিতে গ্রাফিক্স ডিজাইনার এর কাজের কোন অভাব হয় না।

এটি একটি সম্মান জনক পেশা। তবে আপনাকে গ্রাফিক্স ডিজাইন পেশায় আসতে হলে সৃজনশীলতা ভাবনা থাকতে হবে। একটি ডিজাইন কেমন হবে, কোন আইটেমের জন্য কোন কালার দিলে ডিজাইনটা ফুটে উঠবে এইরকম সৃজনশীলতা আপনার থাকলে আপনি গ্রাফিক্স ডিজাইন করতে পারবেন।

গ্রাফিক্স ডিজাইন কি?

গ্রাফিক্স শব্দটির উৎপত্তিস্থল জার্মান শব্দ গ্রাফিক থেকে। গ্রাফিক্স ডিজাইন শব্দটিকে যদি ভাঙ্গে বলা যায় তাহলে-
গ্রাফিক্স অর্থ চিত্র বা রেখা এবং ডিজাইন অর্থ নকশা। তাহলে এভাবে বলা যায়, চিত্র দ্বারা নকশা তৈরি করার প্রক্রিয়াই হচ্ছে গ্রাফিক্স ডিজাইন। অর্থাৎ এই পৃথিবীতে যা কিছুর ছবি আঁকা যায় প্রত্যেকটা ছবিকে আমরা গ্রাফিক্স ডিজাইন বলতে পারি। গ্রাফিক্স ডিজাইন এমন একটি প্রসেস যার মাধ্যমে যেকোনো মানুষের কাছে বাস্তব রুপে উপস্থাপন করা যায়।

গ্রাফিক্স ডিজাইন সমদ্ধে কি কি জানা লাগবে?

গ্রাফিক্স ডিজাইনার হওয়ার জন্য আপনাকে গ্রাজুয়েট হওয়ার দরকার নাই। তবে ইংরেজিতে মোটামুটি দক্ষতা থাকলেই অনেক ভাল করতে পারবেন। কারণ ইংরেজি হল ইন্টারন্যাশনাল ভাষা যে ভাষার মাধ্যমে যেকোনো দেশের যেকোনো বর্ণের মানুষের সাথে আপনি যোগাযোগ করতে পারেন। একটি উচ্চ ক্ষমতাসম্পন্ন কম্পিউটার লাগবে।
গ্রাফিক্স ডিজাইনের জন্য প্রয়োজন ইমেজ এডিটিং সফটওয়্যার। যেমন অ্যাডোবি ফটোশপ, এডোবি ইলাস্ট্রেটর।

গ্রাফিক্স ডিজাইনের অংশ কি কি?

যেকোনো পণ্য বা সার্ভিস এর প্রচারনার জন্য দৃষ্টি নন্দন আকর্ষণীয় ডিজাইন এর বিকল্প নেই। তাই সবসময় ডিজাইন এর কাজ করতে হয়। যেমনঃ

  • লোগো ডিজাইন
  • ওয়েব/ PSD টেম্পলেট ডিজাইন
  • বিজনেস কার্ড ডিজাইন
  • ব্রোশিয়োর ডিজাইন
  • ফ্লায়ার ডিজাইন
  • ব্যানার ডিজাইন
  • লিটারহেড ডিজাইন
  • সোস্যাল কভার ডিজাইন
  • ফটো ডিজাইন
  • অ্যাপ ডিজাইন
  • আইকন ডিজাইন
  • টি-শার্ট ডিজাইন
  • ভেক্টর ডিজাইন
  • 3D অ্যানিমেশন/মোশন গ্রাফিক্স
  • UI/UX ডিজাইন ইত্যাদি।

লোগো ডিজাইন

লোগো হচ্ছে কোম্পানির পরিচয় বা ব্র্যান্ড। লোগোর মাধ্যমে একটি প্রতিষ্ঠানকে চেনা যায় খুব সহজে। বিশ্বের নামকরা ব্র্যান্ড গুগোল, ফেইসবুক, অ্যাপল, স্যামসাং, গ্রামীণফোন ইত্যাদি শুধুমাত্র তাদের লোগো দেখে চেনা যায় যে এটা কোন কোম্পানি বা প্রতিষ্ঠান। যেমন f দেখলে বুঝতে পারেন এটা ফেসবুক। এই লোগো একজন গ্রাফিক ডিজাইনার করে থাকে। লোগো যেমন লোকাল বিজনেস এ প্রয়োজন ঠিক তেমনি অনলাইন মার্কেটপ্লেসে বহুল চাহিদাসম্পন্ন একটি বিষয়।

ওয়েব/ PSD টেম্পলেট ডিজাইন

এটা বলা বাহুল্য। অনলাইনে এ যুগে ওয়েবসাইটের চাহিদা আর ব্যাবসার প্রসারে ওয়েবসাইট একটি গুরুত্বপূর্ণ হাতিয়ার। অনেকে এখন শিক্ষা প্রতিষ্ঠান, ব্যাবসার প্রসার ঘটাতে, এমনকি বাক্তিগত ওয়েবসাইট বানাতে চায়। তাই একটি ওয়েবসাইট ডিজাইনের জন্য একজন গ্রাফিক্স ডিজাইনার এর ভূমিকা অনেক গুরুত্বপূর্ণ। বাটন তৈরি, ব্যানার তৈরি, আইকন তৈরি, ইমেজ এডিটিং। এছাড়াও একজন গ্রাফিক্স ডিজাইনার PSD টেম্পলেট তৈরির মাধ্যমে একটি সম্পূর্ণ ওয়েবসাইট এর লেআউট তৈরি করতে পারে। এই পুরো ওয়েবসাইট টি দেখতে কেমন হবে সেটাই হচ্ছে ওয়েব/ PSD টেম্পলেট ডিজাইন।

বিজনেস কার্ড ডিজাইন

বিজনেস কার্ড এর গুরুত্ব অপরিসীম। কোন পণ্যের মার্কেটিং বা ব্রান্ডিং এর জন্য, ব্যক্তি এবং প্রতিষ্ঠান উভয়ের পরিচিতি বৃদ্ধির জন্য বিজনেস কার্ড জনপ্রিয় একটি মাধ্যম। বিজনেস কার্ডের পরিসর ছোট হওয়ার কারণে এখানে ডিজাইন করতে হয় সুন্দরভাবে। যাতে সংক্ষেপে ব্যক্তি বা প্রতিষ্ঠানকে ফুটিয়ে তোলা যায়। বিজনেস কার্ড গ্রাফিক ডিজাইনের একটি অন্যতম অংশ। লোকাল মার্কেটে শুধু নয় অনলাইনেও বিজনেস কার্ড ডিজাইন করে আয় করা যায়।

আরও অনেক ডিজাইন আছে যেগুলো গ্রাফিক্স ডিজাইনাররা করে থাকে। এখানে সংক্ষিপ্ত লিখার চেষ্টা করলাম যাতে পড়তে বোরিং না লাগে।

গ্রাফিক্স ডিজাইন শিখে কোথায় চাকরি করতে পারবেন?

  • পত্রিকা
  • ম্যাগাজিন
  • প্রকাশনা প্রতিষ্ঠান
  • অনলাইন মার্কেটপ্লেস
  • প্রিন্টিং ডিজাইন প্রতিষ্ঠান
  • বিজ্ঞাপন নির্মাতা প্রতিষ্ঠান
  • ওয়েব ডেভলপমেন্ট প্রতিষ্ঠান

নিচে কয়েকটি জনপ্রিয় অনলাইন মার্কেটপ্লেস সাইটের নাম উল্লেখ করলাম

কিছু কিছু ওয়েবসাইট আছে যেখানে প্রতিযোগিতা করে ক্লায়েন্টের চাহিদা মতো গ্রাফিক ডিজাইন করে থাকে এবং ওই প্রতিযোগিতায় বিজয়ী হয়ে ক্লায়েন্টের বাজেট অনুযায়ী অর্থ প্রদান করা হয়।

অনেক ডিজাইন ওয়েবসাইট আছে যেখানে আপনি গ্রাফিক ডিজাইন করে ইনকাম করতে পারবেন। অনেক কিছু ওয়েবসাইট আছে যেখানে আপনি ডিজাইন আপলোড করে রাখবেন এবং সেগুলো বিক্রির মাধ্যমে আয় করতে পারবেন।

আপনি কিভাবে গ্রাফিক্স ডিজাইন শিখবেন?

গ্রাফিক ডিজাইন আপনি তিনটি মাধ্যমে শিখতে পারবেন

  • বিভিন্ন ওয়েবসাইটে বা ইউটিউব টিউটোরিয়াল দেখে
  • ভালো কোন প্রতিষ্ঠান
  • ভালো কোন গ্রাফিক ডিজাইনারের কাছে প্রশিক্ষণ নিতে পারেন


আপনার কাছে যদি পর্যাপ্ত পরিমাণ টাকা থাকে তাহলে কোন ট্রেইনিং সেন্টারে যেতে পারেন। আর না থাকলে চিন্তার কোন কারণ নাই। ইউটিউব এ এখন প্রচুর পরিমাণ টিউটরিয়াল আছে গ্রাফিক্স ডিজাইন এর উপর।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *